September 28, 2022

দৈনিক ভোরের বার্তা

সঠিক পথে সত্যের সন্ধ্যানে

আলফাডাঙ্গাতে স্কুল ছাত্রী সহ আহত দুই ও আশ্রায়ন ঘর ভাংচুরের অভিযোগ

1 min read
বৃদ্ধ মহিলা সহ হামলার শিকার

ছবি-দৈনিক ভোরের বার্তা

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলাতে স্কুল পড়ুয়া ছাত্রী, বৃদ্ধ মহিলা সহ হামলার শিকার আশ্রায়ন প্রকল্পের ঘর ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে।

 

একই উপজেলার টগরবন্দ ইউনিয়নে ২ নং ওয়ার্ড উত্তরমালা গ্রামে মোকলেস শেখ (৬৫) বাড়িতে গত উনিশে আগস্ট শুক্রবার বেলা অনুমান১১ ঘটিকায় বসত বাড়িতে হামলা হয় বলে অভিযোগ সূত্রে জানা যায়।

 

মোকলেস শেখের স্ত্রী চায়না বেগম( ৫৫) ও মেয়ে মালা শহীদ আসাদুজ্জামান উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণী স্কুল পড়ুয়া ছাত্রী জুই খানম(১৬) হামলার শিকার হয়ে কাশিয়ানী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছে। এছাড়া তার ছেলের ওপর হামলা চালায় বলে দাবি করেন মোকলেস।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মোবাইল হারিয়ে যাওয়া কে কেন্দ্র করে ওই দুই পরিবারের মধ্যে মারামারি ও ভাঙচুর হয়েছে।মোকলেস শেখ বাদী হয়ে থানা লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে, জুয়েল শেখ ১০ ই আগস্ট কাশিয়ানী বাজার থেকে নতুন একটি স্মার্টফোন ক্রয় করে। পাশাপাশি প্রতিবেশী হওয়ায় ১৮ ই আগষ্ট বিকাল ৪ টার সময় ফরহাদ ফকির (৩৫) জুয়েলের কাছ থেকে কিছু সময় মোবাইল ব্যবহারের কথা বলে নেয়।পূর্ব শত্রুতায় ফরহাদ ফকির (৩৫) মোবাইল ফেরত দেয়না।তাদের দুইজনের মধ্যে বাকবিতন্ড হয়ে হাতাহাতি হয়।

 

পরবর্তী দিন ফরহাদ ফকির (৩৫) তার দলবল নিয়ে মোকলেস শেখের বাড়ি ভাংচুর ও পরিবারের লোকজনের উপর হামলা চালায়। চায়না বেগমের(৫৫) মাথায় ও হাতের কব্জির নিচে চাপাতি কোপে হাড়কাটা রক্তাক্ত জখম করে।

 

জুই খানমের(১৬)চুলের মুঠি ধরে এলোপাতাড়ি ভাবে পিটিয়ে শরীরে বিভিন্ন স্থানে ফোলা কালচ জখম ও অশ্লীলতাহানি ঘটায়।বসত ঘরে ঢুকে সোনা,, নগদ টাকা লুট ও খাট শোকেচ ভাংচুর করে। মোকলেস শেখ বলেন,দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার পরিবারের উপর হামলা চালায়।

 

আমরা এখন ভয়ে অন্য জায়গায় পালিয়ে বেড়াচ্ছি। পরিবারের সকলকে নিয়ে আতংকে আছি।সরজমিনে ফরহাদের বড় বোন পারভীন গণমাধ্যম কর্মী দেখে রাগান্বিত হয়ে বলেন,মোকলেসের পরিবারের কাউকে বাড়িতে ঢুকতে দিবো না পেলে মারবো।

এদিকে ফরহাদ ফকির ০১৭৫৩৮৮৪৫০৪ মুঠোফোনে বলেন, সত্য কথা বলব আমার গলায়ও চোখে ব্যথা আমি কথা বলতে পারছি না।আমি হাসপাতালে ভর্তি আছি। ওরা(জুয়েল) আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আমার গলা চেপে ধরে আমাকে মারধর করে ও আমার বাবার উপরে চড়াও হয়ে কিল-ঘুসি মারে।তড়িঘড়ি করে দ্রুত মুঠোফোনে কেটে দেন।কয়েক বার ফোন দিলে ফোন রিসিভ করে না।

 

আবার এক ঘন্টা৪০ মিনিট পরে ফোন দিলে তার স্ত্রী বলে সে ঘুমাচ্ছে,চোখে ব্যথা করছে। ফরহাদ এর সাথে কথা বলার অনুরোধ করলে বলে ডেকে দেখি কথা বললে ফোন দেব।

আলফাডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন,অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্হা গ্রহণ করা হইবে।

 

আরিফুজ্জামান চাকলাদার আপেল

দৈনিক ভোরের বার্তা

Leave a Reply

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial