September 28, 2022

দৈনিক ভোরের বার্তা

সঠিক পথে সত্যের সন্ধ্যানে

পদ্মাসেতু উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে গিয়ে হারানো বুদ্ধি প্রতিবন্ধী অহিদের সন্ধান লাভ

1 min read
বুদ্ধি প্রতিবন্ধী অহিদুলের সন্ধান

ছবি-দৈনিক ভোরের বার্তা

পদ্মাসেতু উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে গিয়ে হারিয়ে যাওয়া সেই বুদ্ধি প্রতিবন্ধী অহিদুলের সন্ধান পাওয়া গেছে ঢাকার গুলস্থানে।

সে ফরিদপুরের ভাঙ্গার পৌরসদরের দাড়িয়ার মাঠ (কলেজ পাড়) ইউনুছ মিয়ার ছেলে। রাস্তা ভুল করে সে হারিয়ে যায় এবং বর্তমানে সে তার পরিবারের কাছে রয়েছে বলে পারিবার সূত্রে জানানো হয়েছে।

 

মঙ্গলবার (৫জুলাই) দুপরে) মোবাইল ফোনে অহিদুল ইসলামের ভাই রবি এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, তার ভাইকে ১০দিন পর ঢাকায় পেয়েছেন। ভাইকে পেয়ে তারা দুজনই বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন। আট দিন ধরে অহিদ অনাহারে থেকে দুর্বল হয়ে পড়েছেন।

 

সে এখন প্রচন্ড দুর্বল। তাকে ডাক্তার দেখাতে হবে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকার গুলিস্থান থেকে একটি পরিবহনে বাড়ির (ভাঙ্গা) উদ্দেশ্যে রওনা দেন। অহিদের ভাই (রবি) বলেন, আমার ভাই  (অহিদুল) হারানোর পরের দিন ২৬শে জুলাই ভাঙ্গা থানায় জিডি করেছিলাম। (জিডি নং-১০৬৫)।

 

রবি জানান, মা বেঁচে নাই বৃদ্ধা বাবা ইউনুছ মিয়া (অবসর প্রাপ্ত ড্রাইভার) ছেলে হারানোর পর থেকে পাগলপ্রায়। মা থাকলে হয়ত যেতে দিত না। আমার ভাই ইশারা ইঙ্গিতে জানিয়েছে অহিদ রাস্তা ভুলে সে রাস্তায় রাস্তায় ঘোরাফেরা করেছে কিন্তু কাউকে চিনতে পারে নাই।

 

ক্লিয়ার কথা বলতে না পারায় সে বাড়ির ঠিকানাও কাউকে বলতে পারে নাই। বললেও তার কথা কেউ বুঝতে পারে নাই। কোন হোটেল বা কোন দোকানে খাবার দেখলে একটু এগিয়ে গেলে তাকে সবাই তাড়িয়ে দিতো। গত দুই দিন আগে (রবিবার ৩ জুলাই)  গুলিস্তানে দেখতে পান অহিদের বাড়ীর পাশের চাচাতো ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ঢাকার পুলিশ সুপার জনাব তারেক আহমেদ (পিপিএম বার) এর দৃষ্টিতে পড়ে।

 

তারপরে অহিদকে পেটপুরে খাওয়ানোর পর অফিসে নিয়ে যান তিনি। তখন তিনি পরিবারের নিকট ফোনে খবর জানান। খবর শুনে আমার বাবা সহ আমরা সবাই যেন পৃথিবীটা পেয়ে গেলাম।

 

অহিদকে হারনোর পর থেকে আমাদের পরিবারের সদস্যরা পাগলপ্রায় ছিলো ,আল্লাহর দয়ায় ভাইকে পেয়ে আল্লাহর দরবারে লাখো কোটি শুকরিয়া  এবং যারা আমার ভাইয়ের সন্ধানের বিষয়ে পত্র-পত্রিকায় প্রচার সহ বিভিন্ন ভাবে চেষ্টা করেছেন তাদের প্রতিও আমাদের পরিবারের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

 

উল্লেখ, গত শনিবার (২৫ জুন) ছিলো স্বপ্নের পদ্মাসেতু উদ্বোধনের দিন। সেদিন এ উপলক্ষে ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ছিলো আনন্দ উল্লাস, আগের দিন থেকেই মানুষের মনে ছিলো আনন্দ, উল্লাস ! কে কোন গাড়ীতে ট্রাকে বা লঞ্চে যাবে পদ্মাপাড়ে।

বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী অহিদুলও একজন ভ্রমন পিপাষু মানুষ। সাধারন মানুষের মতো অহিদুল স্বপ্নের পদ্মাসেতু দেখতে ছুটেযান কাঙ্খিত স্থানে মানে পদ্মাপাড়ে। কিন্তু লাখো মানুষের ভিড়ে এই সহজ-সরল মানুষটি সেদিন আর ফিরে আসেনি।

মো. সাখাওয়াত হোসেন, ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি >

দৈনিক ভোরের বার্তা

 

Leave a Reply

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial